আজ মঙ্গলবার, ১১ মাঘ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ, ২৪ জানুয়ারী ২০১৭ খ্রিস্টাব্দ
ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন লাইভ টিভি লাইভ রেডিও সকল পত্রিকা যোগাযোগ
শিরোনাম : ২০১৬ সালের বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার ঘোষণা       তামিলনাড়ুতে ষাঁড়ের লড়াইয়ে ২ জনের মৃত্যু       ১৩০ কেজি গাঁজাসহ রংপুরে ৪ মাদক ব্যবসায়ী আটক        টাঙ্গাইলে ৫ মণ গাঁজাসহ আটক ৩       সাতক্ষীরায় বনদস্যু আনারুল আটক       সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন আরাফাত সানি        ২০১৭ সালের হজ চুক্তি করতে সৌদি আরব যাচ্ছেন ধর্মমন্ত্রী      
ভোলার শুঁটকি এখন বিদেশে রফতানি হচ্ছে
Published : Thursday, 12 January, 2017 at 8:44 PM, Count : 22
ভোলার শুঁটকি এখন বিদেশে রফতানি হচ্ছেজুয়েল সাহা, ভোলা সংবাদদাতা : ভোলার উৎপাদিত শুটকি এখন বিদেশে রপ্তানি হচ্ছে। দেশের চাহিদা মিটিয়ে মালয়েশিয়া, সৌদি আরব, কাতার, ওমান, বাহারাইন, দুবাই, ইরাক, কুয়েত, লিবিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ভারতসহ বিভিন্ন দেশে রপ্তানি হচ্ছে। ভোলার চরফ্যাশন ও মনপুরা উপজেলার প্রায় কয়েক হাজার পরিবারের একমাত্র আয়ের উৎস্য শুটকি। তারা বর্ষার ৬ মাস নদী ও সাগরে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ শিকার করে রোদে শুকাতে থাকে। পরের ৬ মাস তারা এসব শুটকি বাজারে বিক্রি করতে শুরু করে। আর এ পেশায় নিয়োজিত হয়ে অনেকে হয়েছে সাবলম্বী।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বিভিন্ন নদী ও সাগর থেকে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ শিকার করে ভোলার মনপুরা উপজেলার হাজিরহাট, ফকিরহাট, তালতলি, কলাতলি, চরফ্যাশন উপজেলার কুকরী-মুকরী, মনুরা, বকশি, ঢালচর, চর পাতিলায় বিভিন্ন পয়েন্টে অসংখ্য শুটকি পল্লী গরে উঠেছে। সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত পুরুষ ও নারীরা খোলা আকাশের নিচে মাছ রোদে শুকিয়ে শুটকিতে প্রস্তুত করা হচ্ছে। ওই সব মাছ রোদে ভালো করে শুকিয়ে শুটকিতে রুপান্তরিত করে বাজার বিক্রি করা হচ্ছে। উপজেলার চর কুকরী-মুকরী শুটকি ব্যবসায়ী ইসমাইল হোসেন জানান, কার্তিক থেকে চৈত্র মাস শুটকির মূল মৌসুম। আমাদের থেকে শুটকি নিতে দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে পাইকারি ব্যবসায়ীরা আসেন। ঢালচরের শুটকি ব্যবসায়ী আবদুল হালিম জানান, ভালো মানের শুটকি উৎপাদন করায় আমদের শুটকির অনেক চাহিদা চট্টগ্রামের পাইকারি বিক্রি করি। এছাড়াও আমরা ঢাকা আড়ৎদারের মাধ্যমে বিদেশে শুটকি রপ্তানি করি। শুটকি বিক্রি করে আমি সাবলম্বী হয়েছি। এখন আমার শুটকি পল্লীতে প্রায় ৫০ জন শ্রমিক কাজ করে। দুলারহাটের শুটকি আড়ৎদার মিজানুর রহমান জানান,  প্রতি মণ ওলুপা শুঁটকি দুই হাজার থেকে ২৫০০ টাকা,  সেওলা ১৪০০ থেকে দুই হাজার টাকা, রাবিশ ১২০০ থেকে দুই হাজার টাকা ও চিংড়ি গুঁড়া ২৫০০ থেকে তিন হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়। শুটকি মাছের মান  ভেদে ‘এ’, ‘বি’ ও ‘সি’ গ্রেডে বাছাই করা হয়। ‘এ’  গ্রেডের শুটকি বিদেশে ভালো দামে বিক্রি করা হয়।
ঢাকার শুটকি পাইকারি আড়ৎদার মোঃ আবু সালাম মিয়া জানান, ভোলায় ভালো মানের শুটকি উৎপন্ন হয়। তাই সেখানকার শুটকির দাম একটু বেশি। এছাড়াও তিনি আরো জানান, ভোলার শুটকির চাহিদা বিদেশে রয়েছে। তাই আমাদের মাধ্যমে তারা বিভিন্ন দেশে শুটকি রপ্তানি করে। এব্যাপারে ভোলা জেলা মৎস্য অফিসার রেজাউল করিম জানান, ভোলার অনেক শুটকি পল্লী গরে উঠেছে। অনেক পরিবার দেশ ও বিদেশে শুটকি রপ্তানি করে সাবলম্বী হয়েছে। তিনি আরো জানান, আমরা তাদের বিভিন্ন পরামর্শ দিয়ে থাকি।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


কাগজে যেমন ওয়েবেও তেমন
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
সোস্যাল নেটওয়ার্ক
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর : কে.এম. বেলায়েত হোসেন
মেসার্স পিউকি প্রিন্টার্স, নব সৃষ্ট প্লট নং ২০, তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা থেকে মুদ্রিত এবং ৪-ডি, মেহেরবা প্লাজা, ৩৩ তোপখানা রোড, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত।
বার্তা বিভাগ : ৯৫৬৩৭৮৮, পিএবিএক্স-৯৫৫৩৬৮০, ৭১১৫৬৫৭, ফ্যাক্স : ৯৫১৩৭০৮ বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন ঃ ৯৫৬৩১৫৭
ই-মেইল : bhorerdk@bangla.net, adbhorerdak@gmail.com,  Developed & Maintenance by i2soft
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি