আজ সোমবার, ৯ শ্রাবণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৪ জুলাই ২০১৭ খ্রিস্টাব্দ
ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন লাইভ টিভি লাইভ রেডিও সকল পত্রিকা যোগাযোগ
শিরোনাম : জেরুজালেমে আগুন নিয়ে খেলছে ইসরায়েল : আরব লিগের হুঁশিয়ারি       বাংলাদেশের সঙ্গে ব্রহ্মপুত্রে নতুন জলপথ করছে ভারত       বাংলাদেশের দুই চলচ্চিত্র মিসরের চলচ্চিত্র উৎসবে       মহাদেবপুরে বাস চাপায় বাবা-ছেলে নিহত       রংপুরে বিকাশ কর্মীকে গুলি করে ৫ লাখ টাকা ছিনতাই       রংপুরে ৮১৬ জন মুক্তিযোদ্ধার মাঝে ঊনপঞ্চাশ লক্ষ টাকার চেক বিতরণ       উজানের পানিতে কেশবপুরের ৪ সড়কসহ ২০০ পরিবার পানিবন্দী      
মিয়ানমারের বিশেষ দূতের ঢাকায় সফর
Published : Thursday, 12 January, 2017 at 2:26 PM, Count : 85
মিয়ানমারের বিশেষ দূতের ঢাকায় সফরআন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ঢাকায় দু’দিনের সফর করেছেন মিয়ানমারের বিশেষ দূত ও উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী কিউ টিন। এই সফরে রোহিঙ্গা শরণার্থী সমস্যা এবং নানা দ্বিপাক্ষিক বিষয় নিয়ে তার সঙ্গে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলির বিশদ আলোচনা হয়েছে। খবর বিবিসির। 

বিগত প্রায় পঁচিশ বছর ধরে বাংলাদেশকে মিয়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গা শরণার্থীদের স্রোত সামলাতে হচ্ছে। গত কয়েক মাসে সেই সঙ্কট আরো জটিল আকার ধারণ করেছে। 

এই পটভূমিতে মিয়ানমারের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক আলোচনার মাধ্যমে কূটনৈতিক পথে সঙ্কটের সমাধান সম্ভব কিনা সে বিষয়ে আলোচনা হচ্ছে। বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রদূত ও কূটনীতিক হুমায়ুন কবীর বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছেন, সমস্যাটা সমাধানে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে দ্বিপাক্ষিক ভাবে উদ্যোগ বজায় রাখার চেষ্টা করা হয়েছে। 

তিনি বলেন, কুয়ালালামপুরে আসিয়ান এবং ওআইসির পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সভা হওয়ার কথা রয়েছে। এর প্রেক্ষাপটেই মিয়ানমারের উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকায় এসেছেন। 

এটা মিয়ানমারের ভেতরকার সমস্যা কাজেই মিয়ানমারকেই এর নিষ্পত্তি করতে হবে। বাংলাদেশের পক্ষ থেকে তাদের বক্তব্য সুদৃঢ়ভাবে বলতে হবে।

কবীর বলেন, ‘যদি দ্বিপাক্ষিকভাবে সমাধান হয়ে যায় সেটাই আমরা খুঁজবো। কারণ মিয়ানমার আমাদের নিকটতম প্রতিবেশী। রোহিঙ্গা সমস্যা ছাড়াও অন্যান্য বিষয়েও লেনদেন রয়েছে এবং থাকবে। তবে মিয়ানমারের সঙ্গে বিগত দিনের অভিজ্ঞতার কারণে প্রয়োজনে আমাদের আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক পথ খুঁজে বের করতে হবে।’

এই আলোচনায় কতটা আশাবাদী হওয়া যায় এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমরা মোটামুটি আশাবাদী। তবে খুব বেশি আশাবাদী হওয়ার সুযোগ নেই। এর আগেও আলোচনা হয়েছে কিন্তু পুরনো সমস্যার কোন সমাধান হয়নি।’

যদি এই সমস্যার নিষ্পত্তি না হয় তবে সেটা কোনো দেশের জন্যই মঙ্গলজনক হবে না। এমনকি আন্তর্জাতিক নিরাপত্তার জন্যও হুমকি হিসেবে থেকে যেতে পারে এই রোহিঙ্গা সমস্যা। এমনটাই মন্তব্য করলেন সাবেক এই কূটনীতিক। 


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


কাগজে যেমন ওয়েবেও তেমন
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
সোস্যাল নেটওয়ার্ক
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর : কে.এম. বেলায়েত হোসেন
মেসার্স পিউকি প্রিন্টার্স, নব সৃষ্ট প্লট নং ২০, তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা থেকে মুদ্রিত এবং ৪-ডি, মেহেরবা প্লাজা, ৩৩ তোপখানা রোড, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত।
বার্তা বিভাগ : ৯৫৬৩৭৮৮, পিএবিএক্স-৯৫৫৩৬৮০, ৭১১৫৬৫৭, ফ্যাক্স : ৯৫১৩৭০৮ বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন ঃ ৯৫৬৩১৫৭
ই-মেইল : bhorerdk@bangla.net, adbhorerdak@gmail.com,  Developed & Maintenance by i2soft
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি