আজ রবিবার, ৩ পৌষ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭ খ্রিস্টাব্দ
ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন লাইভ টিভি লাইভ রেডিও সকল পত্রিকা যোগাযোগ
শিরোনাম : আগামী নির্বাচনেও শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় আসবে : নৌমন্ত্রী       ছায়েদুল হকের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক       শহীদ পুলিশ সদস্যদের প্রতি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী-আইজিপির শ্রদ্ধা নিবেদন       বাবা-মায়ের পাশে শায়িত হবেন ছায়েদুল হক       জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা       রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা শাসকগোষ্ঠীর দমননীতির বহিঃপ্রকাশ       পঞ্চগড়ে বিজয় বাইসাইকেল র‌্যালি      
জিরা দারুচিনি ও এলাচির দাম উর্ধ্বমুখি
Published : Sunday, 13 August, 2017 at 8:30 PM, Count : 65
জিরা দারুচিনি ও এলাচির দাম উর্ধ্বমুখিঅর্থনৈতিক রিপোর্টার : ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে মশলাব বাজারে আবারো সক্রিয় হয়ে উঠেছে সিন্ডিকেট। কোনো কারণ ছাড়াই রাজধানীর বাজারগুলো বাড়তে শুরু করেছে মশলার দাম। এরইমধ্যে জিরা, এলাচিসহ বেশ কিছু মশলার দাম ঊর্ধ্বমুখী হয়েছে। ্যবসায়ীরা বলছেন, মসলা আমদানির শুল্ক বেশি। এছাড়া সব ধরনের ব্যয় ঊর্ধ্বমুখী হওয়ায় প্রতিষ্ঠানের খরচ বেড়েছে। যার প্রভাব পণ্যের ওপর পড়বে। ভোক্তাদের মতে মূল্যবৃদ্ধির পেছনে হাজারটা ওযুহাত দেখাবে ব্যবসায়ীরা। কিন্তু সরকারের উচিৎ ভোক্তাদের কথা বিবেচনা করে একটা সুষ্ঠু নীতি প্রণয়ন করা এবং বাজারে পর্যপ্ত মনিটরিং এর ব্যবস্থা করা। নইলে নিকট ভবিষ্যতে বাজার পরিস্থিতি আরো বেহাল হবে।  
রাজধানীর মসলার পাইকারি বাজার ঘুরে জানা গেছে. ঈদে চাহিদার তুঙ্গে থাকে জিরা, এলাচি ও দারুচিনি। এরইমধ্যে এসব মসলার দাম বেশ বেড়েছে। বর্তমানে মানভেদে প্রতিকেজি জিরায় বেড়েছে ৩০ থেকে ৫০ টাকা। বর্তমান বাজারে প্রতিবেজি জিরা বিক্রি হচ্ছে ৩৫৫ থেকে ৩৯০ টাকায়। একই অবস্থা দারুচিনিতেও। কেজিপ্রতি বেড়েছে ১০ থেকে ২০ টাকা। বর্তমানে বাজারে প্রতিকেজি দারুচিনি বিক্রি হচ্ছে ২৩০ টাকা থেকে ২৭০ টাকা। এলাচি কেজিতে ক্ষেত্র বিশেষে বেড়েছে ৫০ থেকে ১৫০ টাকা। বর্তমানে বিক্রি হচ্ছে ১৩৫০ টাকা থেকে ১৬৮০ টাকায়।
এছাড়াও তেজপাতা ৯০ টাকা থেকে ১৩০ টাকায়, সাদা গোল মরিচ ৯৮০ টাকা থেকে ১০০০ টাকা, কালো গোল মরিচ ৬৮০ টাকা থেকে ৭০০ টাকায়, জয়ফল ৬৫০ টাকা থেকে ৯৫০ টাকায়, যত্রিক ১৩৫০ টাকা থেকে ১৪৫০ টাকা, কিসমিস ২৬৫ টাকা থেকে ২৭৫ টাকা, আলু বোখারা ৪৬০ টাকা থেকে ৪৯০ টাকা, কাঠবাদাম ৬১০ টাকা থেকে ৭১০ টাকা, পোস্তাদানা ৭৮০ টাকা থেকে ৮৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।
রাজধানীর কারওয়ান বাজারের পাইকারি ব্যবসায়ী ফরিদ মিয়া বলেন, ঈদের আগে মশলার চাহিদা অনেক বেশি থাকে। কিন্তু সরবরাহ সেই পরিমান থাকে না। ফলে আড়ৎ থেকে দাম কিছুটা বৃদ্ধি পায়। তিনি বলেন, দাম বেড়েছে তবে গত বছরের তুলনায় খুব বেশি বাড়েনি।
এদিকে, পাইকারি বাজারের মসলার দাম বৃদ্ধির প্রভাব পড়েছে খুচরা বাজারেও। রাজধানীর বিভিন্ন খুচরা বাজার ঘুরে দেখা গেছে, মানভেদে প্রতিকেজি জিরা বিক্রি হচ্ছে ৪০০ থেকে ৪৫০ টাকা, দারুচিনি ৩০০ টাকা থেকে ৩৫০ টাকা ও এলাচি বিক্রি হচ্ছে ১৪০০ টাকা থেকে ১৭০০ টাকায়, তেজপাতা ১৫০ টাকা থেকে ১৮০ টাকা, সাদা গোল মরিচ ১০০০ টাকা, কালো গোল মরিচ ৮০০ টাকা থেকে ৯০০ টাকায়।

রাজধানীর জিগাতলা কাচাবাজারে আসা ক্রেতা কোহিনুর বেগম বলেন, পেঁয়াজ আদা, জিরা, এলাচসহ প্রায় সব ধরনের মশলার দাম বেড়েছে। ঈদকে কেন্দ্র করে কিছু অসাধু শ্রেণীর ব্যবসায়ী রাতারাতি আঙুল ফলে কলাগাছ হতে এমন পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। সরকারের উচিৎ এদের খুঁজে বের করে শাস্তির আওয়তায় আনা।
মসলার দাম বৃদ্ধির কারণ জানতে চাইলে খুচরা বিক্রেতারা বলছেন, সামনে ঈদ তাই দাম একটু বেড়েছে।ু পাইকারি বাজারে দাম বাড়ার কারণে খুচরা বাজারে দাম বাড়াতে হচ্ছে।
বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বিভিন্ন অজুহাতে নিত্যপণ্যের দাম বাড়ানো হচ্ছে। বিশেষ করে চাল ও পেঁয়াজের বাজার এখনও অস্থির। মসলার দামও বাড়ছে। এরপরও চোখে পড়ছে না সরকারি কোনো মনিটরিং ব্যবস্থা। এখনই পাইকারি বাজারে যদি মনিটরিং করা না হয়, তাহলে এর প্রভাব খুচরা বাজারে পড়বে বলে আশঙ্কা তাদের।
ঈদকে সামনে রেখে মসলার দাম বৃদ্ধির বিষয়ে বাংলাদেশ গরম মসলা ব্যবসায়ী সমিতি সভাপতি হাজী এনায়েতুল্লাহ বলেন, মসলার দাম কিছুটা বেড়েছে। বাজার উঠবে-নামবে এটা স্বাভাবিক। তবে আগের তুলনায় এখনও দাম অনেক কম রযেছে। যেমন, সাদা গোল মরিচ ১৩০০ টাকা থেকে ১৪০০ টাকা ছিল। এটা গত মাস পর্যন্ত ৮০০ টাকায় নেমে আসে। এখন আবার কিছুটা বেড়ে ৯০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।






« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


কাগজে যেমন ওয়েবেও তেমন
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
সোস্যাল নেটওয়ার্ক
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর : কে.এম. বেলায়েত হোসেন
মেসার্স পিউকি প্রিন্টার্স, নব সৃষ্ট প্লট নং ২০, তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা থেকে মুদ্রিত এবং ৪-ডি, মেহেরবা প্লাজা, ৩৩ তোপখানা রোড, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত।
বার্তা বিভাগ : ৯৫৬৩৭৮৮, পিএবিএক্স-৯৫৫৩৬৮০, ৭১১৫৬৫৭, ফ্যাক্স : ৯৫১৩৭০৮ বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন ঃ ৯৫৬৩১৫৭
ই-মেইল : bhorerdk@bangla.net, adbhorerdak@gmail.com,  Developed & Maintenance by i2soft
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি