আজ শুক্রবার, ৩ ভাদ্র ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ১৮ আগস্ট ২০১৭ খ্রিস্টাব্দ
ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন লাইভ টিভি লাইভ রেডিও সকল পত্রিকা যোগাযোগ
শিরোনাম : গাজীপুরে মাছ ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা       বার্সেলোনা হামলায় ১৮ দেশের নাগরিক হতাহত       ২০ আগস্ট পর্যন্ত হজ ভিসা আবেদনের সময় বৃদ্ধি       ‘বছর শেষের আগেই ক্ষমতা ছাড়বেন ট্রাম্প’       শ্রেণিকক্ষে স্বামীকে আটকে শিক্ষিকাকে গণধর্ষণ       ট্রাকের পেছনে মোটরসাইকেলের ধাক্কা : ৩ আরোহী নিহত       স্পেনে সন্ত্রাসীদের দ্বিতীয় হামলা ঠেকালো পুলিশ : নিহত ৫      
মতবিনিময় সভায় চউক চেয়ারম্যান
তিন বছরে বদলে যাবে চট্টগ্রাম মহানগরী
Published : Sunday, 13 August, 2017 at 9:02 PM, Count : 16
চট্টগ্রাম ব্যুরো : চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (চউক) নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসন, খাল খনন, যানজট নিরসনের লক্ষ্যে ১৪ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছে। গতকাল শনিবার নগরীর একটি হোটেলে চউক কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম এক মতবিনিময় সভায় এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, আগামী তিন বৎসরে চট্টগ্রাম নগরী সম্পূর্ণরূপে বদলে যাবে। প্রধানমন্ত্রীর সদিচ্ছার কারণেই চট্টগ্রামে এত বড় প্রকল্পের কাজ একনেক সভায় অনুমোদন পেয়েছে। এরই মধ্যে জলাবদ্ধতা নিরসনসহ বিভিন্ন প্রকল্পের জন্য ৫ হাজার ৬১৬ কোটি টাকার অনুমোদন দেয়া হয়েছে। অতীতে এতবড় প্রকল্পের অর্থ বরাদ্দ আর দেয়া হয়নি চট্টগ্রামের জন্য।
চট্টগ্রামবাসী দীর্ঘদিন ধরে জলাবদ্ধতা এবং জোয়ারের পানিতে কষ্টপাচ্ছে। আমি চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান হিসেবে ৬০ লাখ নগরবাসীর জন্য বড় সমস্য সমাধানের উদ্যোগী হয়ে এই প্রকল্প গ্রহণ করেছি। সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠান চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন ও চট্টগ্রাম ওয়াসার সহযোগিতা নিয়েই প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে। বন্দর নগরীতে ৫৭টি খাল ছিল। এর অধিকাংশই ভরাট ও দখল হয়ে গেছে। এই প্রকল্পে ৩৬টি খাল খনন করা হবে।
তিনি বলেন, দেশের বৃহৎ ফ্লাইওভার লালখান বাজার থেকে এয়ারপোর্ট পর্যন্ত ৩ হাজার ২৫০ কোটি টাকা প্রকল্পের কাজ শুরু হচ্ছে। এই ফ্লাইওভারে উঠানামার জন্য আগ্রাবাদ বারেক বিল্ডিং, কাস্টমস, ইপিজেড, কে-ইপিজেড, কাঠগড, পতেঙ্গা হয়ে এয়ারপোর্ট পর্যন্ত ব্যবস্থা থাকবে।
চউক চেয়ারম্যান বলেন, আমি রাজনীতি করি। চউক চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দিয়ে প্রধানমন্ত্রী আমাকে চট্টগ্রামের উন্নয়েনে কাজ করাচ্ছেন। ১৯৯৫ সালে চউক প্রণীত মাস্টার প্ল্যান অনুযায়ী চট্টগ্রামের উন্নয়ন কাজ হওয়ার কথা। দীর্ঘদিন অতিবাহিত হলেও তা বাস্তবায়ন হয়নি। ২০১৬ সালে চট্টগ্রাম ওয়াসা পুনরায় সময়োপযোগী মাস্টার প্ল্যান করেছে। স্যুয়ারেজ ও ড্রেনেজ এর জন্য নেয়া এই প্রকল্পটি অনুসরণ করে আমরা কাজ করব। প্রতি খালের মুখে একটি সøুইচ গেইট ও পাম্প বসানো হবে। জোয়ারের পানি যাতে নগরবাসীর দুর্ভোগের কারণ না হয় এবং খালের উপর নিচু ব্রীজগুলোকে উঁচু করা হবে। পাহাড়ের বালি যাতে খাল ও ড্রেন ভরে না যায় সে জন্য এক জায়গায় বালি সংরক্ষণের ব্যবস্থা রাখা হবে। এসব বালি সরানোর জন্য ৮৭ কি:মি: ১৫ ফুট প্রশস্ত রাস্তা তৈরী করা হবে।
১৯৫৯ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় চউক। আমি চেয়ারম্যানের দায়িত্ব নিয়ে যখন যে কাজ করতে চেয়েছি, কোথায়ও সমস্যায় কাজ আটকে যায়নি। রাস্তা সম্প্রসারণ করতে মসজিদ, মন্দির, প্যাগোডার অংশ বিশেষ ভাঙতে হয়েছে। তারপরও দলমত নির্বশেষে আমাকে নগরবাসী সহযোগিতা করেছে। এ জন্য আমি প্রধানমন্ত্রী ও নগরবাসীর কাছে কৃতজ্ঞ।
ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন আর সেøাগান নয়। এর সফলতা মানুষ পেয়ে গেছে। রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা থাকার কারণেই এতসব উন্নয়ন সম্ভব হয়েছে। বাংলাদেশ আজ বিশ্বের কাছে উন্নয়নের রোল মডেল। প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের নগরী চট্টগ্রাম সাগর, নদী আর পাহাড়ে ঘেরা। এখানের উন্নœয়ন সারা দেশের উন্নয়নের ঢেউ সারা দেশে লাগবে।
মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সিডিএ বোর্ড সদস্য জসিম উদ্দিন, জসিম উদ্দিন শাহ, কেবিএম শাহজাহান, স্থপতি সোহেল শাকুর, সিডিএ প্রধান প্রকৌশলী জসিম উদ্দিন, প্রধান নগর পরিকল্পনাবিধ শাহিনুল ইসলাম খান, উপ-সচিব অমল গুহ প্রমুখ।





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


কাগজে যেমন ওয়েবেও তেমন
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
সোস্যাল নেটওয়ার্ক
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর : কে.এম. বেলায়েত হোসেন
মেসার্স পিউকি প্রিন্টার্স, নব সৃষ্ট প্লট নং ২০, তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা থেকে মুদ্রিত এবং ৪-ডি, মেহেরবা প্লাজা, ৩৩ তোপখানা রোড, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত।
বার্তা বিভাগ : ৯৫৬৩৭৮৮, পিএবিএক্স-৯৫৫৩৬৮০, ৭১১৫৬৫৭, ফ্যাক্স : ৯৫১৩৭০৮ বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন ঃ ৯৫৬৩১৫৭
ই-মেইল : bhorerdk@bangla.net, adbhorerdak@gmail.com,  Developed & Maintenance by i2soft
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি