আজ শুক্রবার, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৪ নভেম্বর ২০১৭ খ্রিস্টাব্দ
ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন লাইভ টিভি লাইভ রেডিও সকল পত্রিকা যোগাযোগ
শিরোনাম : সততা ও উন্নয়নের কারণেই আগামীতেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা       চট্টগ্রাম পর্বের শুরুতে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে খুলনা       ফতুল্লায় ভেকু চাপায় শ্রমিকের মৃত্যু, লাশ গুম চেষ্টার অভিযোগ       রংপুর-খুলনা ম্যাচ দিয়ে বিপিএলের চট্টগ্রাম পর্ব শুরু       ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মসজিদে বারী সিদ্দিকীর প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত       কালিয়াকৈরে ট্রেন-ট্রাক সংঘর্ষ, ট্রেনের সহকারী চালক নিহত       জিয়াউর রহমানের ছোট ভাই কামাল আর নেই      
প্রিন্সদের বিচারে নিরপেক্ষ থাকার প্রতিশ্রুতি সৌদির
আটককৃতদের প্রকৃত সংখ্যা ৫ শতাধিক
Published : Wednesday, 15 November, 2017 at 8:23 PM, Count : 20
আটককৃতদের প্রকৃত সংখ্যা ৫ শতাধিকভোরের ডাক ডেস্ক : দুর্নীতির অভিযোগে আটক বেশ কয়েকজন প্রিন্সসহ উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তা আর ধনকুবেরদের ওপর পিটুনি-নির্যাতন-নিপীড়নের অভিযোগের মুখে সৌদি আরব তাদের জন্য আইনি সুরক্ষা নিশ্চিতের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। গত সোমবার জাতিসংঘে নিয়োজিত সৌদি দূত আবদাল্লাহ আল-মোয়াল্লিম জানিয়েছেন, যথাযথ বিচার প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়েই তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। সৌদি রাজপরিবারের অভ্যন্তরীণ সূত্রকে উদ্ধৃত করে মিডল ইস্ট আই-এর সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদনে আটককৃতদের একাংশের ওপর শারীরিক নিপীড়নের অভিযোগ তোলা হয়। তাই সৌদি প্রতিশ্রুতিতে ভরসা করতে পারছেন না অনেকেই।  
সৌদি আরবে সাম্প্রতিক দুর্নীতিবিরোধী অভিযানে রাজপরিবার থেকে ২০১ জনকে আটকের কথা জানানো হলেও রাজ দরবারের অভ্যন্তরীণ সূত্রকে উদ্ধৃত করে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদ পর্যবেক্ষণকারী ব্রিটিশ ওয়েবসাইট মিডল ইস্ট আই তাদের সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদনে জানায়, আটককৃতদের প্রকৃত সংখ্যা ৫ শতাধিক। রাজদরবারের অভ্যন্তরীণ সূত্রকে উদ্ধৃত করে এদের মধ্যে কয়েকজন উচ্চপর্যায়ের ব্যক্তির ওপর বেধড়ক পিটুনি ও নির্যাতন চালানোর কথা উঠে আসে ওই প্রতিবেদনে। তবে জাতিসংঘের সৌদি দূত দাবি করেছেন, নিরপেক্ষ বিচারকই আটককৃতদের বিরুদ্ধে শুনানি করবেন।
ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়, গত সোমবার নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের সদর দফতরে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ নিয়ে জানতে চাইলে আবদাল্লাহ আল-মোয়াল্লিম বলেন, ‘আমি আপনাদের আশ্বস্ত করতে পারি যে যারাই আটক হচ্ছেন তাদের যে কেউই স্বাভাবিক বিচার প্রক্রিয়ায় বিচার পাওয়ার সুযোগ পাবেন।’ তবে কতজনকে আটক করা হয়েছে এ নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি তা প্রকাশ করতে অস্বীকৃতি জানান। বলেন, ‘আপনাদেরকে জানানোর মতো কোনও সংখ্যা আমার জানা নেই। সঠিক সময় আসলে নিরাপত্তা কর্তৃপক্ষ তা ঘোষণা করবে।’
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সৌদি আরবের দুর্নীতিবিরোধী অভিযানকে সমর্থন জানিয়েছেন। তার দাবি, যারা আটক হয়েছে তারা বছরের পর বছর ধরে দেশকে শুষে খাচ্ছিল। অবশ্য, মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর এ ব্যাপারে ‘সুষ্ঠু ও স্বচ্ছ’ বিচার প্রক্রিয়া চালানোর জন্য রিয়াদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচও আটকের আইনি ভিত্তি ও অভিযোগের প্রমাণ হাজিরের মধ্য দিয়ে যথাযথ বিচার প্রক্রিয়া অনুসরণে সৌদি আরবকে তাগিদ দিয়েছিল। উল্লেখ্য, গত ৪ নভেম্বর সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজ যুবরাজ মুহাম্মদ বিন সালমানকে নিরঙ্কুশ ক্ষমতা দিয়ে নতুন একটি দুর্নীতিবিরোধী কমিটি গঠন করেন। পরে এক দুর্নীতিবিরোধী অভিযানে ১১ জন রাজপুত্র, চারজন দায়িত্বরত মন্ত্রী, বেশ ক’জন সাবেক মন্ত্রী, ডেপুটি ও ব্যবসায়ীদের আটক করা হয়। মন্ত্রিপরিষদ ও নিরাপত্তা বাহিনীতেও বড় ধরনের রদবদল আনা হয়। যুবরাজ হওয়ার আগে মোহাম্মদ বিন সালমান শপথ নিয়ে বলেছিলেন: ‘আমি আপনাদেরকে আশ্বস্ত করছি, দুর্নীতির মামলায় কেউ টিকতে পারবে না-সে যেই হোক না কেন। এমনকি তিনি যদি রাজপুত্র কিংবা মন্ত্রীও হন তবুও তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ যারা এখনও আটক হননি তারা যেন দেশ ছেড়ে পালাতে না পারেন তার জন্য তাদের প্রাইভেট ব্যাংক অ্যাকাউন্টগুলো জব্দ করার নির্দেশ দিয়েছেন মোহাম্মদ বিন সালমান। রিয়াদের এক সূত্রের বরাত দিয়ে মিডল ইস্ট আই জানায়, বন্ধ করে দেওয়া অ্যাকাউন্ট এবং ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞায় পড়া ব্যক্তিদের সংখ্যা আটককৃতদের চেয়ে কয়েক গুণ বেশি। হাউস অব সৌদের এতো জ্যেষ্ঠ রাজপুত্রদের ওপর এই মাত্রার ধরপাকড় অভিযান চালানো হবে তা কেউ ভাবেনি। আর সেকারণেই তারা পালানোর সময় পায়নি এবং ধরা পড়েছে।
সূত্রকে উদ্ধৃত করে মিডল ইস্ট আই সম্প্রতি জানিয়েছে, গ্রেফতার ও জিজ্ঞাসাবাদের সময় এতোটাই বাজেভাবে পেটানো ও নির্যাতন চালানো হয়েছে যে তাদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করাতে হয়েছে।তাছাড়া সৌদিপন্থী বিশ্লেষকরা এ অভিযানকে বাণিজ্য উদারীকরণের মধ্য দিয়ে নতুন অর্থনীতিতে প্রবেশের রাজনৈতিক সংস্কার প্রক্রিয়া বললেও অন্যরা একে দেখছেন রাজপরিবারের ক্ষমতাকেন্দ্রিকঅভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্ব হিসেবে। সব মিলে আটককৃতদের বিরুদ্ধে সুষ্ঠু বিচার প্রক্রিয়া অনুসরণ করা হবে কিনা তা নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে।   






« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


কাগজে যেমন ওয়েবেও তেমন
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
সোস্যাল নেটওয়ার্ক
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর : কে.এম. বেলায়েত হোসেন
মেসার্স পিউকি প্রিন্টার্স, নব সৃষ্ট প্লট নং ২০, তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা থেকে মুদ্রিত এবং ৪-ডি, মেহেরবা প্লাজা, ৩৩ তোপখানা রোড, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত।
বার্তা বিভাগ : ৯৫৬৩৭৮৮, পিএবিএক্স-৯৫৫৩৬৮০, ৭১১৫৬৫৭, ফ্যাক্স : ৯৫১৩৭০৮ বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন ঃ ৯৫৬৩১৫৭
ই-মেইল : bhorerdk@bangla.net, adbhorerdak@gmail.com,  Developed & Maintenance by i2soft
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি