আজ শনিবার, ২ পৌষ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭ খ্রিস্টাব্দ
ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন লাইভ টিভি লাইভ রেডিও সকল পত্রিকা যোগাযোগ
শিরোনাম : রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা শাসকগোষ্ঠীর দমননীতির বহিঃপ্রকাশ       পঞ্চগড়ে বিজয় বাইসাইকেল র‌্যালি       একদিনে ২৯ জঙ্গিকে ফাঁসি দিল ইরাক       শনিবার স্মৃতিসৌধে যাবেন খালেদা জিয়া        উ.কোরিয়ার মোকাবেলায় একসঙ্গে কাজ করবে মার্কিন-রাশিয়া       ঠাকুরগাঁও টিকিট কাটাকে কেন্দ্র করে কর্তৃপক্ষের হামলায় আহত ৫       নওগাঁয় ওভারব্রিজে ধাক্কা লেগে ট্রেনের ১যাত্রীর মৃত্যু      
এসডিজি অর্জনে চ্যালেঞ্জ
সকলকে সাথে নিন
Published : Friday, 8 December, 2017 at 6:30 PM, Count : 19
জাতিসংঘ নির্ধারিত মিলেনিয়াম গোল অব ডেভেলপমেন্ট (এমডিজি)র মেয়াদ শেষ হলো সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট গোল (এসডিজি) গ্রহণ করা হয়েছে। এমডিজি অর্জনে বাংলাদেশ বেশ সাফল্য প্রদর্শন করেছে। বিশেষ করে সার্কভুক্ত দেশগুলোর তুলনায়। কিন্তু এসডিজি অর্জন একটা বড় চ্যালেঞ্জ, কারণ এসডিজি অর্জনে যে ১৭টি লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে, তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে, দারিদ্র্য নির্মূলকরণ, যেটা এমডিজিতে ছিল দারিদ্র্য বিমোচন বা গরিবের হার কমিয়ে আনা। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য বা এসডিজি গ্রহণের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অর্থনীতিবিদ ড. মুহাম্মদ ইউনূসের ভূমিকা আছে। তিনিই প্রথম বলেছিলেন ‘২০৩০ সালের পর আমরা দারিদ্র্যকে জাদুঘরে পাঠাতে চাই।’ জাতিসংঘ ড. ইউনূসের এই সদিচ্ছাকে এসডিজির অন্যতম শর্ত হিসেবে গ্রহণ করেছে। বাংলাদেশের জন্য কাজটা বেশ কঠিন, এজন্য এ কাজে সকলের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে। বিশেষ করে নাগরিক সমাজের অংশগ্রহণ ছাড়া এটা অর্জন মোটেই সম্ভব নয়।
বুধবার রাজধানীতে এসডিজি নিয়ে দিনব্যাপী নাগরিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে সিপিডির চেয়ারম্যান রেহমান সোবহান বলেন, এসডিজি অর্জনে সরকারের সাথে বেসরকারিখাতের কাজের সমন্বয় থাকা উচিত। নাগরিক প্লাটফর্মের প্রতিষ্ঠানগুলোর কাজের সাথে সরকারের কাজে সমন্বয়ের জন্য একটা প্রাতিষ্ঠানিক কাঠামো থাকা উচিত।
দারিদ্র শ্রেণি বিভক্ত সমাজের একটা অপরিহার্য অঙ্গ। সভ্যতার শুরু থেকেই দরিদ্রের শুরু, তবে এর মাত্রার হেরফের আছে। প্রাচীণ ভারতে যখন চিরায়ত গ্রাম স্বনির্ভর ব্যবস্থা ছিল তখন দারিদ্র্য কম ছিল। কিন্তু তারপরও পৌরাণিক কাহিনীসমূহ, প্রাচীণ ও মধ্যযুগের ধ্রুপদ সাহিত্যে দারিদ্র্যের কথা জানা যায়। দারিদ্র্য পুরোপুরি নির্মূল হয়ত কখনোই সম্ভব নয়, সমাজ ব্যবস্থার বৈপ্লবিক পরিবর্তন ছাড়া। তবে এটা সহনীয় পর্যায়ে নামিয়ে আনা সম্ভব। মুক্তিযুদ্ধের একটা বড় লক্ষ্য ছিল দরিদ্র নির্মূল করা এবং শ্রেণি বৈষম্য লোপ করা। যদি এসডিজি অর্জন হয় তাহলে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাও বাস্তবায়িত হবে। সুতরাং সরকারের দায়িত্ব হবে সকলকে সাথে নিয়ে এসডিজি অর্জনে কাজ করা।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


কাগজে যেমন ওয়েবেও তেমন
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
সোস্যাল নেটওয়ার্ক
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর : কে.এম. বেলায়েত হোসেন
মেসার্স পিউকি প্রিন্টার্স, নব সৃষ্ট প্লট নং ২০, তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা থেকে মুদ্রিত এবং ৪-ডি, মেহেরবা প্লাজা, ৩৩ তোপখানা রোড, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত।
বার্তা বিভাগ : ৯৫৬৩৭৮৮, পিএবিএক্স-৯৫৫৩৬৮০, ৭১১৫৬৫৭, ফ্যাক্স : ৯৫১৩৭০৮ বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন ঃ ৯৫৬৩১৫৭
ই-মেইল : bhorerdk@bangla.net, adbhorerdak@gmail.com,  Developed & Maintenance by i2soft
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি