আজ বুধবার, ৪ মাঘ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ১৭ জানুয়ারী ২০১৮ খ্রিস্টাব্দ
ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন লাইভ টিভি লাইভ রেডিও সকল পত্রিকা যোগাযোগ
শিরোনাম : ৬ মাসের মধ্যে ডাকসু নির্বাচন দেয়ার নির্দেশ       ডিএনসিসির উপ-নির্বাচন স্থগিত       কলম্বিয়ায় সামরিক হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত : নিহত ১০       রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন চুক্তির বিষয়ে জাতিসংঘ মহাসচিবের গভীর উদ্বেগ       উত্তরা মেডিকেলের ৫৭ শিক্ষার্থীর শিক্ষা কার্যক্রমে বাধা নেই       না.গঞ্জে ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনিতে নিহত দুই       শাহজালালে ৩১৮ কার্টন সিগারেট জব্দসহ আটক ২      
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘প্রকাশনা উপকরণ বিক্রয় কেন্দ্র’-এর উদ্বোধন
Published : Wednesday, 10 January, 2018 at 3:16 PM, Count : 156
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘প্রকাশনা উপকরণ বিক্রয় কেন্দ্র’-এর উদ্বোধনজবি সংবাদদাতা : জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে (জবি) প্রথমবারের মতো আয়োজিত হয়েছে গ্রন্থ প্রকাশনা উৎসব। এ আয়োজনে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকা এবং ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে প্রাণ-চাঞ্চল্যতা কাজ করছে।

মঙ্গলবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মিলনায়তনে জনসংযোগ, তথ্য ও প্রকাশনা দপ্তরের উদ্যোগে এ উৎসব অনুষ্টিত হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান বলেন, ‘বাংলাদেশে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষাকে ভুল ব্যাখ্যা দেয়া হয়। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার মানে হচ্ছে বিশেষ বিদ্যালয়, যেখানে মানুষ আলোকিত এবং উদার হয়। কিন্তু বর্তমানে সনদ বিতরণই বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল কাজ হয়ে দাড়িয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন ধরনের এক্সট্টা কারিকুলাম, সাহিত্য চর্চা, বক্তব্য দেয়া, আবৃত্তি করা, বিভিন্ন ধরনের সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড অংশগ্রহণ করা, মানুষের সাথে মেলামেশার চর্চা শিখানো হওয়া উচিত’।

তিনি আরো বলেন, “গবেষণার মাধ্যমেই নতুন জ্ঞানের সৃষ্টি হয়। বর্তমানে উচ্চশিক্ষায় এবং গবেষণায় বরাদ্দের অভাব নেই, অভাব রয়েছে স্বক্ষামতার। গ্রন্থ প্রকাশনা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরিহার্য এবং মৌলিক কাজ। বেশি বেশি বই পাঠের ফলে মানুষের দৃষ্টিভঙ্গির উচ্চতা প্রসারিত হয়।”

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান বলেন, “জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য আজকের দিনটি স্মরণীয় কারণ প্রথমবারের মত জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে গ্রন্থ প্রকাশনা উৎসব শুরু হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় আর কলেজের মধ্যে মূল পার্থক্য হচ্ছে- কলেজে শুধু জ্ঞান বিতরণ করে, আর বিশ্ববিদ্যালয়ে জ্ঞান সৃষ্টি এবং বিতরণ করে। এই বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণাধর্মী কার্যক্রম পূর্ণাঙ্গভাবে বছর দু’য়েক আগে থেকে শুরু হয় এম.ফিল এবং পি.এইচডি ডিগ্রিতে ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু করার মধ্য দিয়ে। বর্তমানে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রায় ১৪০ জনের মত শিক্ষক বিভিন্ন ধরনের গবেষণায় জড়িত রয়েছেন। তাদের গবেষণা ফলপ্রসূভাবে শেষ হলে এগুলোও প্রকাশনা আকারে প্রকাশ হবে।  

অনুষ্ঠানে ট্রেজারার অধ্যাপক সেলিম ভূঁইয়া’র সভাপতিত্বে এবং রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী ওহিদুজ্জামান-এর সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন পান্ডুলিপি মুদ্রণ কমিটির আহ্বায়ক ও জনসংযোগ, তথ্য ও প্রকাশনা দপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক ড. মিল্টন বিশ্বাস। 

উৎসব শেষে প্রথমবারের মতো জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘প্রকশনা উপকরণ বিক্রয় কেন্দ্র’-এর উদ্বোধন করেন অধ্যাপক আবদুল মান্নান। এই বিক্রয় কেন্দ্রে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন প্রকাশনা বিক্রয় করা হবে। এসময় বিভিন্ন অনুষদের ডিন, ইনস্টিটিউটের পরিচালক, বিভাগের চেয়ারম্যান, শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


কাগজে যেমন ওয়েবেও তেমন
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
সোস্যাল নেটওয়ার্ক
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর : কে.এম. বেলায়েত হোসেন
মেসার্স পিউকি প্রিন্টার্স, নব সৃষ্ট প্লট নং ২০, তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা থেকে মুদ্রিত এবং ৪-ডি, মেহেরবা প্লাজা, ৩৩ তোপখানা রোড, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত।
বার্তা বিভাগ : ৯৫৬৩৭৮৮, পিএবিএক্স-৯৫৫৩৬৮০, ৭১১৫৬৫৭, ফ্যাক্স : ৯৫১৩৭০৮ বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন ঃ ৯৫৬৩১৫৭
ই-মেইল : bhorerdk@bangla.net, adbhorerdak@gmail.com,  Developed & Maintenance by i2soft
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি