আজ শনিবার, ৭ মাঘ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২০ জানুয়ারী ২০১৮ খ্রিস্টাব্দ
ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন লাইভ টিভি লাইভ রেডিও সকল পত্রিকা যোগাযোগ
শিরোনাম : বিশাল ব্যবধানে শ্রীলঙ্কাকে হারাল টিম টাইগার       শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মচারী নিখোঁজ       তারুণ প্রজন্মকেই আধুনিক সমাজ বিনির্মাণে এগিয়ে আসতে হবে : শিরীন শারমিন       রক্ত পরীক্ষায় খুব সহজেই ক্যান্সার শনাক্ত!       দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেলেন অর্থমন্ত্রী, আহত ৩০       না.গঞ্জে নিখোঁজের ১২ দিন পর মাদ্রাসার ছাত্রীর লাশ উদ্ধার       সাগরদাঁড়িতে আগামীকাল শুরু হচ্ছে সপ্তাহব্যাপী মধুমেলা      
রোহিঙ্গা হত্যার স্বাধীন তদন্তের আহ্বান অ্যামনেস্টির
সু চির কাছে জাপানের উদ্বেগ প্রকাশ
Published : Saturday, 13 January, 2018 at 8:42 PM, Count : 27
ভোরের ডাক ডেস্ক : মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা গণহত্যার ব্যাপারে স্বাধীন তদন্তের আহ্বান জানিয়েছে লন্ডন ভিত্তিক আন্তর্জাতিক মানবাধিকার বিষয়ক সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। ১০ জন রোহিঙ্গা মুসলিমকে হত্যার সঙ্গে সেনা সদস্যরা জড়িত রয়েছে বলে প্রথমবারের মতো দেশটির সেনাবাহিনীর স্বীকারোক্তির পর এক বিবৃতিতে এমনটা জানিয়েছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। খবর আল-জাজিরা। অ্যামনেস্টি বলছে, দেশটির সেনাবাহিনী রোহিঙ্গা হত্যার ব্যাপারে জড়িতদের বিষয়ে যে স্বীকারোক্তি দিয়েছে তা অবশ্যই ইতিবাচক। তবে বিশাল অপরাধের এটি একেবারেই খ চিত্র। উল্লেখ্য, রাখাইন রাজ্যের মংডুর ইন দিন গ্রামে ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে একটি গণকবরের সন্ধান পায় দেশটির আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। সেই গণকবর থেকে কমপক্ষে ১০ জন রোহিঙ্গার মরদহে উদ্ধার করা হয়। যা নিয়ে নানা ধরনের আলোচনা-সমালোচনা এখনো অব্যাহত রয়েছে।
গত বুধবার দেশটির সেনাপ্রধান মিন অং হ্লেইং তার ফেসবুকে পেজে একটি বিবৃতি দেন। সেখানে বলা হয়, সেনাসদস্য এবং স্থানীয় গ্রামবাসীরা বাঙালি সন্ত্রাসীদের (রোহিঙ্গাদের বাঙালি হিসেবে বিবেচনা করে মিয়ানমার) হত্যার ঘটনার সঙ্গে জড়িত ছিল। জড়িতদের ব্যাপারে আইনানুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। যদিও রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে জাতিগত নিধন ও মানবতা বিরোধী অপরাধের অভিযোগ বরাবরই অস্বীকার আসছিল মিয়ানমার। অন্যদিকে রাখাইনের নিধনযজ্ঞকে পাঠ্যপুস্তকে উল্লেখিত গণহত্যার উদাহরণের সঙ্গে তুলনা করা হয়েছিল জাতিসংঘের পক্ষ থেকে।
তবে সেসব অভিযোগ বরাবরই প্রত্যাখ্যান করে রাখাইনে জাতিসংঘের তদন্তকারী কর্মকর্তা ও সাংবাদিকদের প্রবেশেরও অনুমতি দেয়া হয়নি। রোহিঙ্গা নিধনের ব্যাপারে নিশ্চুপ আছেন শান্তিতে নোবেল বিজয়ী নেত্রী অং সান সু চি।
এদিকে, প্রথমবারের মতো রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চির কাছে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাপান। গতকাল শুক্রবার জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী তারো কোনো মিয়ানমারের রাজধানী নেপিদুতে সু  চির সঙ্গে বৈঠকে এ উদ্বেগ প্রকাশ করেন।
জাপানের বার্তা সংস্থা কাইয়োদো জানিয়েছে, মিয়ানমার সফররত জাপানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী গতকাল শুক্রবার মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চির সঙ্গে বৈঠক করেছেন। বৈঠকে জাপানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী রোহিঙ্গা ইস্যুতে তার সরকারের উদ্বেগের বিষয়টি জানিয়েছেন। এদিকে, বাংলাদেশ থেকে যেসব রোহিঙ্গা মিয়ানমারে ফেরত যাবে তাদের সহায়তার জন্য জাপান ২৯ লাখ ৭০ হাজার মার্কিন ডলারের জরুরি ত্রান সহায়তার ঘোষণা দিয়েছে। শুক্রবার বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ তথ্য জানিয়েছে। গত বছরের ২৪ আগস্ট রাখাইনে সেনা ও নিরাপত্তা বাহিনীর তল্লাশি চৌকিতে হামলা চালায় রোহিঙ্গা বিদ্রোহীরা। পরের দিন অর্থাৎ ২৫ আগস্ট থেকে সেনরা রোহিঙ্গা নিধন অভিযানে নামে। সেনাদের নির্যাতন, হত্যা ও ধর্ষণ থেকে বাঁচতে রোহিঙ্গারা দেশ ছেড়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসতে শুরু করে। এ পর্যন্ত প্রায় ৬ লাখ ৫০ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদশে আশ্রয় নিয়েছে।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


কাগজে যেমন ওয়েবেও তেমন
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
সোস্যাল নেটওয়ার্ক
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর : কে.এম. বেলায়েত হোসেন
মেসার্স পিউকি প্রিন্টার্স, নব সৃষ্ট প্লট নং ২০, তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা থেকে মুদ্রিত এবং ৪-ডি, মেহেরবা প্লাজা, ৩৩ তোপখানা রোড, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত।
বার্তা বিভাগ : ৯৫৬৩৭৮৮, পিএবিএক্স-৯৫৫৩৬৮০, ৭১১৫৬৫৭, ফ্যাক্স : ৯৫১৩৭০৮ বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন ঃ ৯৫৬৩১৫৭
ই-মেইল : bhorerdk@bangla.net, adbhorerdak@gmail.com,  Developed & Maintenance by i2soft
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি