আজ সোমবার, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ খ্রিস্টাব্দ
ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন লাইভ টিভি লাইভ রেডিও সকল পত্রিকা যোগাযোগ
শিরোনাম : চলে গেলেন রংপুরের সাবেক মেয়র ঝন্টু       খালেদার জামিনের আদেশ নথি আসার পর       জনতা ব্যাংকের চেয়ারম্যান হেদায়েত উল্লাহ       কোটা পদ্ধতির সংস্কার দাবিতে নতুন কর্মসূচি ঘোষণা       নবীগঞ্জে অজ্ঞাত কিশোরীর লাশ উদ্ধার       মণিরামপুরে ৪ দিন ধরে শিশু শ্রমিক নিখোঁজ       দুই সিটির উপ-নির্বাচন স্থগিত, রুল নিষ্পত্তির নির্দেশ      
রাঙ্গুনিয়ায় কর্ণফুলীতে চর নাব্যতা হারাচ্ছে নদী
Published : Wednesday, 14 February, 2018 at 6:36 PM, Count : 34
রাঙ্গুনিয়ায় কর্ণফুলীতে চর নাব্যতা হারাচ্ছে নদীরাঙ্গুনিয়া (চট্টগ্রাম) সংবাদদাতা : চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার মাঝ দিয়ে বয়ে যাওয়া একসময়ের খর¯্রােতা কর্ণফুলী নদী এখন নাব্যতা সংকটে পড়েছে। নদীর রাঙ্গুনিয়া অংশের অন্তত ১৫ পয়েন্টে জেগেছে নতুন চর। নদী দিনদিন সংকুচিত হয়ে পড়ছে। তলদেশে অনেক জায়গায় ভরাট হয়ে গেছে। তাছাড়া ডুবু চরের কারণে নদীর স্রোতধারা বিভক্ত। এ কারণে বালি, পলি জমে কর্ণফুলীতে চর জাগছে একের পর এক। এতে নদী দিয়ে নৌকা ও ইঞ্জিন চালিত নৌকা চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। এছাড়াও নাব্যতা সংকটের কারণে নদীতে ঐতিহ্যের বিভিন্ন সুস্বাদু মাছ জেলের জালে আর ধরা পড়েনা। অন্যদিকে নদীতে জেগে উঠা নতুন চরাঞ্চলে আশার সঞ্চার হয়েছে এলাকাবাসীর কাছে। সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, সরফভাটা গোডাউন ব্রীজ থেকে কোদালা পর্যন্ত তিন কিলোমিটার এলাকায় ছোট বড় পনেরটি চর জেগে উঠেছে। কর্ণফুলীর তীর থেকে দীর্ঘ নদী পথে চর জেগে উঠায় পাঁচটি ঘাট দিয়ে যাত্রী পারাপার কষ্টসাধ্য হয়ে উঠেছে। উপজেলার পূর্ব সরফভাটা এলাকায় জেগেছে বিশাল নতুন চর জেগেছে। জোয়ারের পানিতে ছোট কয়েকটা ডিঙ্গি নৌকা চলাচল করতে পারলেও ভাটার পানিতে নদীতে দেখা যায় বিশাল বিস্তৃত চরাঞ্চল। এ সময় চর দিয়ে পায়ে হেঁটে নদীর এপার থেকে ওপারে যাওয়া আসা যায়। জেগে উঠা নতুন এই চরে প্রতিদিন বিকাল হলেই স্থানীয়দের পাশাপাশি দূর দূরান্তের অনেকেই এখানে বেড়াতে চলে আসে। পোমরা এলাকা থেকে এসেছেন মফিজুর রহমান(২৪)সহ কয়েক যুবক। তিনি বলেন, কর্ণফুলীর বুকে জেগে উঠা নতুন চর দেখতে দারুন লাগে। নদীর পাড় জুড়ে ভাঙ্গন প্রতিরোধে বসানো ব্লকে বসে আড্ডা দেয়া যায়। সময় পেলে এখানে চলে আসি। সরফভাটা ভূমির খীল এলাকার কৃষক মো. কবির বলেন, ৯ বছর আগে নদী ভাঙ্গনে তাঁর দুই কানি জমি নদীতে বিলীন হয়ে যায়। তিনি চিন্তা করছেন এই চরে কিছু মৌসুমে সবজি চাষ করবেন। কিন্তু জেগে উঠা চর দখলে নিতে অনেকেই মরিয়া হয়ে উঠেছেন।
বিশেষজ্ঞদের মতে, কর্ণফুলী নদীর উপর দিয়ে নির্মিত ব্রীজ , পাহাড়ের কাঁদা মাটি ও প্রাকৃতিক কারণে পানির ¯্রােত পরিবর্তন হয়ে এই চরাঞ্চলের সৃষ্টি। সেতুর পিলারের কারণে পানি বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। এতে পলি জমে নদী গভীরতা হারাচ্ছে। ধীরে ধীরে তা স্পষ্ট হতে হয়ে নদী পর্যন্ত বিস্তার করে নাব্যতা হারায়। স্থানীয়দের অভিযোগ, দীর্ঘ নদী পথের দু’তীরের ভূমি এবং চর বেদখল হচ্ছে প্রকাশ্যে ও প্রতিযোগিতামূলকভাবে। ফলে নদীর পানি স্থানে স্থানে বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। পলি ও চর জেগে ওঠছে বিভিন্ন জায়গায়। নদী পথের প্রস্থ ছোট হয়ে আসছে। চর জেগে উঠায় নদী পথে চলাচলরত যাত্রীদের দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। রাঙ্গুনিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ কামাল হোসেন বলেন, ‘নদীতে চর জাগার ব্যাপারে আগে থেকেই জানি। এটি খননের ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে।’




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


কাগজে যেমন ওয়েবেও তেমন
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
সোস্যাল নেটওয়ার্ক
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর : কে.এম. বেলায়েত হোসেন
মেসার্স পিউকি প্রিন্টার্স, নব সৃষ্ট প্লট নং ২০, তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা থেকে মুদ্রিত এবং ৪-ডি, মেহেরবা প্লাজা, ৩৩ তোপখানা রোড, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত।
বার্তা বিভাগ : ৯৫৬৩৭৮৮, পিএবিএক্স-৯৫৫৩৬৮০, ৭১১৫৬৫৭, ফ্যাক্স : ৯৫১৩৭০৮ বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন ঃ ৯৫৬৩১৫৭
ই-মেইল : bhorerdk@bangla.net, adbhorerdak@gmail.com,  Developed & Maintenance by i2soft
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি